কারাগারে কামারুজ্জামানের মৃত্যু পরোয়ানা

ছবির কপিরাইট BBC World Service
Image caption মুহাম্মদ কামারুজ্জামান আদালতের রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করতে পারবেন ১৫ দিনের মধ্যে।

মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতা বিরোধী অপরাধে সর্বোচ্চ দণ্ডাদেশ পাওয়া জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের মৃত্যু পরোয়ানায় আজ সাক্ষর করেছে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২।

এই মৃত্যু পরোয়ানা এরপর কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে বিবিসিকে জানিয়েছেন ট্রাইবুনালের রেজিস্ট্রার।

মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের সাজা বহাল রেখে আপিল বিভাগের দেওয়া পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয় গতকাল বুধবার।

মুহাম্মদ কামারুজ্জামান সর্বোচ্চ আদালতের রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করতে পারবেন ১৫ দিনের মধ্যে।

তার আইনজীবি শিশির মনির বিবিসিকে বলেন, নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করবেন তারা।

মৃত্যু পরোয়ানা শোনার পর আসামি রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণ ভিক্ষারও আবেদন করতে পারবেন।

গত বছরের ৩রা নভেম্বর মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের বিরুদ্ধে মামলার সংক্ষিপ্ত রায় ঘোষণা করা হয়।

চিঠিপত্র: সম্পাদকের উত্তর