মমতা ব্যানার্জীর সফরসঙ্গী বিমানবন্দরে গ্রেপ্তার, পরে জামিন

bbc
Image caption শিবাজী পাঁজা

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর সঙ্গে ঢাকা থেকে ফেরার সময়ে কলকাতা বিমানবন্দরে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাঁর এক সফরসঙ্গীকে।

আর্থিক অপরাধের অভিযোগে দিল্লি পুলিশ শিবাজী পাঁজা নামের ওই ব্যবসায়ীর নামে লুক আউট নোটিস জারি করেছিল।

শনিবার রাতে মমতা ব্যানার্জী ও তাঁর সফরসঙ্গীরা ঢাকা থেকে কলকাতায় পৌঁছবার পরে অভিবাসন বা ইমিগ্রেশন দপ্তর মি. পাঁজাকে আটক করে।

বিমানবন্দর থানার হাতে তুলে দেওয়া হলে তাঁকে রাতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে পুলিশের একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে। রবিবার মি. পাঁজাকে আদালতে হাজির করা হলে তিনি জামিনে ছাড়া পেয়েছেন।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী মন্তব্য করেছেন, কোনও ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকতেই পারে, সেটা তাঁর ব্যক্তিগত বিষয়।

অন্যদিকে বিজেপি সহ বিরোধীদলগুলি একজন অভিযুক্ত ব্যবসায়ীকে বিদেশে সফরসঙ্গী করে নিয়ে যাওয়ার জন্য মমতা ব্যানার্জীর ব্যাপক সমালোচনা করছে।

পুলিশ সূত্রে বলা হচ্ছে দিল্লির কালকাজী থানায় মি. পাঁজার বিরুদ্ধে কিছু অর্থনৈতিক অপরাধের অভিযোগ আছে, যার ভিত্তিতে ওই লুক আউট নোটিস জারি হয়েছে।

ভারতীয় দন্ডবিধির চারটি ধারায় তাঁর বিরুদ্ধে জালিয়াতি ও ষড়যন্ত্রের মামলা রয়েছে সেখানে।

অভিবাসন দপ্তরের সূত্রগুলি বলছে ১৯ ফেব্রুয়ারী দিল্লি পুলিশ ওই লুক আউট নোটিস পাঠিয়েছিল, কিন্তু তার আগেই মমতা ব্যানার্জীর সঙ্গে শিবাজী পাঁজা ঢাকা চলে গিয়েছিলেন।

শনিবার রাতে কলকাতা বিমানবন্দরে নামার পরে পাসপোর্ট পরীক্ষার সময়ে লুক আউট নোটিস দেখা যায়।

দিল্লি পুলিশ ঠিক কী আর্থিক অপরাধের জন্য মি. পাঁজার বিরুদ্ধে লুক আউট নোটস জারি করেছে, সেটা এখনও স্পষ্ট নয়।

তবে তাঁকে গ্রেপ্তারের পরেই দিল্লি পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে।

সেখান থেকে একটি বিশেষ দল কলকাতায় আসছে বলে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ জানিয়েছে।

গ্রেপ্তার হওয়ার পরে মি. পাঁজা অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন বলে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

সেখান থেকে আজ ব্যারাকপুর আদালতে হাজির করানো হবে।

মি. শিবাজী পাঁজা দীর্ঘদিন ধরেই মমতা ব্যানার্জীর ঘনিষ্ট ব্যবসায়ী।

বিনোদন এবং চলচ্চিত্রই মি. পাঁজার মূল ব্যবসা তবে আগে একটি টেলিভিশন চ্যানেলেও অর্থ বিনিয়োগ করেছিলেন তিনি।

মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার বেশ কিছুদিন আগে থেকেই মি. পাঁজার সঙ্গে মমতা ব্যানার্জীর ঘনিষ্ঠতা বাড়ে।

এক সময়ে প্রায় সব অনুষ্ঠানেই মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে সফর করতেন মি. পাঁজা। মুখ্যমন্ত্রীর আঁকা ছবির প্রদর্শনীগুলিও তিনিই সংগঠিত করে থাকেন।

চিঠিপত্র: সম্পাদকের উত্তর