লিঙ্গ পরীক্ষার পর নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে এথলেটের আপিল

সতীর্থের সাথে বাঁদিকে দাঁড়ানো দূতি চাঁদ ছবির কপিরাইট Getty AFP
Image caption সতীর্থের সাথে বাঁদিকে দাঁড়ানো দূতি চাঁদ

লিঙ্গ পরীক্ষায় ব্যর্থতার জন্য নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে করা আপিলের শুনানিতে আজ হাজির হবেন ভারতীয় দৌড়বিদ দূতি চাঁদ।

নারী হিসেবে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতেন ভারতীয় এই স্প্রিন্টার।

কিন্তু তার শরীরে অনুমোদিত মাত্রার থেকে বেশি পুরুষ হরমোন পাওয়া যায়।

এর পর তিনি হরমোন চিকিৎসা নিতে অস্বীকৃতি জানান।

আর তাতে তাকে নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে হয়।

দূতি চাঁদ বলেন এতে তার সাথে অন্যায় করা হয়েছে।

তিনি বলেন, যে বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে হরমোনের মাত্রা পরীক্ষা করে আন্তর্জাতিক স্পোর্টস গভর্নিং বডি তা ত্রুটিপূর্ণ।

তাই তিনি আপিলের সিদ্ধান্ত নেন।

বিবিসির সংবাদদাতা জানাচ্ছেন মহিলা এথলেটদের শরীরে টেসটস্টরন বেশি হলে সাধারণত তারা হরমোন থেরাপি নেন।

আর তা না হলে নীরবে খেলার মাঠ থেকে ঝড়ে পড়েন।

দূতি চাঁদের হরমোন থেরাপি নিতে রাজি না হওয়াকে ক্রীড়া জগতে বিরল বলে মনে করা হচ্ছে ।