কোণঠাসা সিপিআইএমের নতুন নেতা ইয়েচুরি

sitaram_yechuri
Image caption সিপিআইএমের নতুন সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি

ভারতের প্রধান বামপন্থী দল মার্ক্সবাদী কমিউনিস্ট পার্টি বা সিপিআইএমের নতুন সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন সীতারাম ইয়েচুরি। বিশাখাপত্তনমের পার্টি কংগ্রেসে তাঁর নাম আজ সর্বসম্মতভাবে গৃহীত হয়।

দলের সাধারণ সম্পাদক পদে মি ইয়েচুরি প্রকাশ কারাটের স্থলাভিষিক্ত হলেন – তিন মেয়াদে যিনি দশ বছরেরও বেশি পার্টির শীর্ষ পদে ছিলেন। বিদায়ী দলনেতা মি কারাটই সীতারাম ইয়েচুরির নাম প্রস্তাব করেন।

এছাড়া সিপিআইএমের বর্ষীয়ান নেতা এস রামচন্দ্রন পিল্লাই – যাঁকে পার্টি নেতৃত্বর জন্য মি ইয়েচুরির প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী বলে ভাবা হয়েছিল – তিনিও প্রতিযোগিতা থেকে সরে দাঁড়িয়ে শেষ পর্যন্ত পনের বছরের ছোট সীতারাম ইয়েচুরিকেই সমর্থন করেন।

পশ্চিমবঙ্গ থেকে রাজ্যসভায় এমপি হিসেবে নির্বাচিত সীতারাম ইয়েচুরি দলের দায়িত্ব পেলেন এমন একটা সময়, যখন লোকসভায় দলের এমপি-র সংখ্যা মাত্র নয়ে এসে ঠেকেছে।

অথচ মাত্র বছরদশেক আগেও লোকসভায় তাদের এমপি ছিল ৪৩জন, দল পশ্চিমবঙ্গ, কেরল ও ত্রিপুরা এই তিনটি রাজ্যে ক্ষমতায় ছিল।

প্রায় চার বছর হল পশ্চিমবঙ্গে সিপিআইএম আর ক্ষমতায় নেই, আর সেই রাজ্যেও বিরোধী দল হিসেবে তাদের যুঝতে হচ্ছে বিজেপি-র ক্রমবর্ধমান প্রভাবের সঙ্গে।

দায়িত্ব নেওয়ার পর সীতারাম ইয়েচুরি অবশ্য অঙ্গীকার করেছেন, সিপিআইএম আবার ঘুরে দাঁড়াতে সক্ষম হবে।

অন্ধ্রপ্রদেশের লোক সীতারাম ইয়েচুরির রাজনৈতিক উত্থান শুরু হয় দিল্লির জেএনইউ বা জহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের বামপন্থী ছাত্রনেতা হিসেবে।

রাজনৈতিক মহলে সীতারাম ইয়েচুরি শুধু ভাল বক্তা বলেই পরিচিত নন, বিভিন্ন দলের সঙ্গে তাঁর ব্যক্তিগত সম্পর্কও খুব ভাল। তরুণ সমাজের মধ্যেও তিনি জনপ্রিয় বলে সিপিএম নেতারা মনে করেন।

সিপিআইএমের নতুন পলিটব্যুরোও আজ ঘোষণা করা হয়েছে। ষোলো সদস্যের এই পলিটব্যুরোতে নতুন সদস্য হিসেবে এসেছেন মহম্মদ সেলিম, হান্নান মোল্লা, সুভাষিণী আলি ও জি রামাকৃষ্ণান।