কলকাতার 'কাবুলিওয়ালা' আফগানরা

ভারতের কলকাতা নগরীতে দশকের পর দশক ধরে বসবাস করছেন হাজার-হাজার আফগান। মোস্কা নাজিব এবং নাজেস আফরোজ এই স্বল্পপরিচিত সম্প্রদায়ের গল্পগুলো তুলে এনেছেন ছবির মাধ্যমে।

ছবির কপিরাইট MOSKA NAJIB

ভারতের প্রথম নোবেল বিজয়ী, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ১৮৮২ সালে একটি বিখ্যাত ছোটগল্প লেখেন 'কাবুলিওয়ালা' নামে। সেই গল্পের মূল চরিত্রটি ছিল সুদূর আফগানিস্তান থেকে বর্তমান পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী, কলকাতায় আসা একজন মানুষকে নিয়ে। গত শতাব্দীজুড়ে সেই গল্প বাংলায় আফগানদের একটি কল্পনাবিলাসী চিত্র রুপায়ন করেছে।

ছবির কপিরাইট .

সাধারণভাবে ভাবা হয় আফগানদের চেহারায় কিছু স্বাতন্ত্র্য বৈশিষ্ট্য রয়েছে- তীক্ষ্ণ চোখ এবং রুক্ষ চেহারা। নিজভূমি থেকে হাজার-হাজার মাইল দুরে থাকলেও ঐতিহ্যবাহী পোষাকে সজ্জিত এ আফগানদের দেখে মনে হবে তারা নিজ দেশেই রয়েছে।

ছবির কপিরাইট .

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গল্প থেকে কলকাতার আফগানদের এখনো বলা হয় কাবুলিওয়ালা, যার অর্থ হচ্ছে 'কাবুলের মানুষ'। যদিও কলকাতা শহর তাদের নতুন বাসস্থল, তবে তারা তাদের স্বতন্ত্র ঐতিহ্য এখনো ধরে রেখেছে।

ছবির কপিরাইট .

পাঁচ দশকেরও বেশি সময় যাবত ভারতীয় স্ত্রী এবং সন্তানদের নিয়ে কলকাতায় বসবাস করছেন দাদগুল খান।

ছবির কপিরাইট .

মি. খানের জন্ম আফগানিস্তানে। খুব কম বয়সেই তিনি বাবার সাথে ভারতে আসেন। তার ছেলে একজন উৎসাহী ক্রিকেটার।

ছবির কপিরাইট .

প্রথমদিককার কাবুলিওয়ালারা নিজ দেশ থেকে আনা মশলা, শুকনো ফল এবং আতর নিয়ে ফেরি করে বেড়াত। গত কয়েক দশকে তারা অন্যান্য ব্যবসার দিকেও ঝুকেছে, যার মধ্যে রয়েছে শহরের বড়বাজার এলাকায় দর্জির দোকান।

ছবির কপিরাইট .

কাবুলিওয়ালাদের প্রায়সময়ই দেখা যাবে শহরের রেস্তোরাগুলোতে স্থানীয় খাবার উপভোগ করতে।

ছবির কপিরাইট .

কিছু কাবুলিওয়ালারা পূর্ববর্তী প্রজন্মের স্মৃতিচিহ্ন বহন করে। এখানে সুলতান খান দেখাচ্ছেন তার মায়ের প্রায় অর্ধ-শতাব্দী পুরনো একটি জামা।

ছবির কপিরাইট .

প্রাচীন রীতি-নীতি এবং ঐতিহ্য এখনো এই স্বল্পপরিচিত সম্প্রদায়ের প্রজন্মের বন্ধন ধরে রেখেছে। প্রায় দেড় কোটি মানুষের কলকাতা শহরে এখন মাত্র ৫০০০ কাবুলিওয়ালা পরিবারের বসবাস।

ছবির কপিরাইট .

কলকাতায় জন্ম হলেও, অনেক কাবুলিওয়ালাই নাগরিকত্বের কাগজপত্র না থাকায় 'রাষ্ট্রহীন' অবস্থায় বসবাস করে। তবে আনুষ্ঠানিক পরিচয় না থাকলেও শহরে তাদের চিরনিদ্রার জায়গা হিসেবে কবরস্থান রয়েছে।