মসজিদ তৈরি নিয়ে সহিংসতায় দুজন নিহত

sonaimuri ছবির কপিরাইট google

বাংলাদেশে নোয়াখালীর সোনাইমুড়ি উপজেলার একটি গ্রামে মসজিদ তৈরি নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে সহিংসতায় অন্তত দুজন মারা গেছে।

নিহত দুজনই হেযবুত তওহিদ নামে একটি সংগঠনের সদস্য।

নোয়াখালী পুলিশের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা বিবিসির ওয়ালিউর রহমান মিরাজকে জানিয়েছেন, সোনাইমুড়ির পোকরা নামের একটি গ্রামে একটি মসজিদ তৈরি করা নিয়ে বিতর্ক থেকে ব্যাপক সহিংসতার সূত্রপাত হয়।

হেযবুত তওহিদ নামে একটি সংগঠনের পক্ষ থেকে গ্রামে একটি মসজিদ নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হলে গ্রামেরই কওমি মাদ্রাসা কেন্দ্রিক আরেক মসজিদের লোকজন তাতে আপত্তি জানায়। তাদের বক্তব্য হেযবুত তওহিদের সদস্যরা সত্যিকারের মুসলিম নয়।

কয়েকদিন ধরে বাক বিতণ্ডার পর কয়েকশ লোক ধারালো অস্ত্র নিয়ে হেযবুত তওহিদের কয়েকজন সদস্য গ্রামের যে বাড়িতে অবস্থান করছিলো সেখানে হামলা চালায়।

দুজনের মৃত্যুর কথা নিশ্চিত করেছেন ঐ পুলিশ কর্মকর্তা। আহত হয়েছে বেশ কয়েকজন যার মধ্যে একজনের জখম গুরুতর।

ঐ সংগঠনের বেঁচে যাওয়া সদস্যদের নিরাপত্তা দিয়ে শহরে পাঠিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করছে পুলিশ।

হেযবুত তওহিদ নিজেদের "মানবতার কল্যাণে নিবেদিত একটি অরাজনৈতিক সংগঠন" হিসাবে বর্ণনা করে। সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা বায়াজিদ খান পন্নী নামে এক ব্যক্তি।