ফ্যাশন দাঁড়িয়ে গেছে যে ধর্মের বিরুদ্ধে লিখলেই তারা হয়ে গেলো মুক্তচিন্তা : প্রধানমন্ত্রী

Image caption নববর্ষের শুভেচ্ছা জানাতে আসা নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখছেন প্রধানমন্ত্রী ( ফটো- ফোকাস বাংলা)

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন কারো ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে লেখা কখনো গ্রহণযোগ্য নয়।

বাংলা নববর্ষের প্রথম দিনে ঢাকায় এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, “আমার ধর্ম আমি পালন করি, কিন্তু আমার ধর্ম সম্পর্কে কেউ যদি নোংরা কথা লেখে, বাজে কথা লেখে সেটা আমরা কেন বরদাশত করবো”।

গণভবন তাকে শুভেচ্ছা জানাতে আসা দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখছিলেন তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন এখন একটা ফ্যাশন দাঁড়িয়ে গেছে যে ধর্মের বিরুদ্ধে কিছু লিখলেই তারা হয়ে গেলো মুক্তচিন্তা।

“আমি তো এখানে মুক্তচিন্তা দেখিনা,আমি এখানে দেখি নোংরামি”।

তিনি বলেন, “যাকে আমি নবী মানি তার সম্পর্কে নোংরা কেউ যদি লেখে সেটা কখনো আমাদের কাছে গ্রহণযোগ্য না”।

প্রধানমন্ত্রী বলেন নোংরা কথা, পর্ণ কথা এগুলো কেন লিখবে ? এটা তো সম্পূর্ণ নোংরা মনের পরিচয়।

"আবার একজন লিখলে আরেকজন খুন করে প্রতিশোধ নিবে এটা তো ইসলাম ধর্ম বলেনি"।

তিনি বলেন বোমা মেরে মানুষ হত্যা করা বা মানুষের জীবনের ওার হুমকি দেয়া -এটা ধর্মে কোথায় বলা আছে?

"যারা এ ধরণের হুমকি দেয় তারাই তো ধর্মকে অবমাননা করে"।

একই সাথে প্রধানমন্ত্রী নববর্ষের অনুষ্ঠানের বিষয়ে সরকারের পক্ষ থেকে দেয়া নির্দেশনা পালনের জন্যেও সবার প্রতি আহবান জানান।