ইন্টারনেট সংযোগে কেন পিছিয়ে বাংলাদেশ?

computer_online ছবির কপিরাইট PA
Image caption ইন্টারনেট ব্যবহারে বাংলাদেশের থেকে এগিয়ে রয়েছে মিয়ানমার ও ইথিওপিয়া

বিশ্বব্যাংক এক প্রতিবেদনে বলছে, মোট জনগোষ্ঠির হিসেবে বিশ্বে যে দেশগুলো ইন্টারনেট সংযোগে পিছিয়ে রয়েছে তার মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান পঞ্চমে।

বাংলাদেশের থেকে এগিয়ে রয়েছে মিয়ানমার বা ইথিওপিয়ার মতো দেশ।

বাংলাদেশের টেলিকম বিশেষজ্ঞ আবু সায়িদ খান বলছেন, এই পিছিয়ে পড়ার ক্ষেত্রে মূলত দুটি বাধা কাজ করে।

গ্রাহক পর্যায়ে ইন্টারনেট ব্যবহারের খরচ বেশি এবং ডিজিটাল অবকাঠামো তৈরিতে বিদেশি বিনিয়োগ নিরুৎসাহিত করা—এই দুই কারণেই ইন্টারনেট সংযোগে পিছিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ।

বিশ্বব্যাংক বলছে, এই খাতে যত কাজ তৈরি হওয়া সম্ভব তাও বাংলাদেশে ততটা হচ্ছে না। কিন্তু বাংলাদেশে ব্যাপক প্রসার হয়েছে মোবাইল ফোন ব্যাবহারে।

বিশ্বে যে দেশগুলোর মোবাইল কল খরচ খুব সস্তা, এবং বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ কর্তৃপক্ষের হিসেব অনুযায়ী দেশের মোট ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সিংহভাগই আসেন মোবাইল ফোনের মাধ্যমে।

কিন্তু ব্রডব্যান্ড বা ওয়াইম্যাক্স সংযোগের ক্ষেত্রে খরচ এখনও অনেক বেশি।

মি. খান বলছেন, মূল সেবা প্রদানকারীর কাছে থেকে গ্রাহকের কাছ পর্যন্ত ইন্টারনেটের সংযোগ পৌছতে মধ্যস্বত্ত্বভোগীদের হস্তক্ষেপে দাম বেড়ে যায়।

সেক্ষেত্রে এটি নিয়ন্ত্রণে সরকারের পদক্ষেপ নিতে হবে বলে মত মি. খানের।

চিঠিপত্র: সম্পাদকের উত্তর