ইস্তানবুলে বিমানবন্দরে আত্মঘাতী হামলায় বহু হতাহত

ইস্তানবুল ছবির কপিরাইট AFP
Image caption বিমানবন্দরটির সকল ফ্লাইট বন্ধ করে দেয়ায় আটকে পড়েছেন বহু যাত্রী।

তুরস্কের ইস্তানবুলে আতাতুর্ক বিমানবন্দরে আত্মঘাতী বোমা ও বন্দুকধারীদের হামলায় কমপক্ষে ৪০ জন নিহত হয়েছেন এবং আরো শতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন।

তুরস্কের সরকার বলছে ইসলামিক স্টেট এই হামলা চালিয়েছে বলে তারা ধারণা করছে।

ইস্তাম্বুলের আতাতুর্ক বিমানবন্দর ইউরোপের তৃতীয় ব্যস্ততম বিমানবন্দর।

হামলার পরপরই সেখানে বিমান চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়।

বিমানবন্দর থেকে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানাচ্ছেন, তারা হঠাৎ গুলির শব্দ শুনতে পান আর তারপর বোমা বিস্ফোরণ।

একটি টার্মিনালে ঢোকার পথে একজন বন্দুকধারী শুরুতে গুলি চালায় এবং তারপর তার শরীরে বাঁধা বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়।

তবে আত্মঘাতী এই হামলায় অংশ নিয়েছেন আরো দুজন বন্দুকধারী।

আতংকের মাঝে বিমানবন্দরে আসা ট্যাক্সিতে করে অনেককে হাসপাতালে নিতে হয়েছে।

সেখানে কেবলই অবতরণ করা একটি বিমানে যাত্রী ছিলেন বিবিসির মার্ক লোয়েন।

পরিস্থিতি বর্ণনা করে তিনি বলছিলেন, যাত্রীদের রানওয়েতেই বিমানে রেখে দেয়া হয়।

তিনি বহু নিরাপত্তা রক্ষী ও এম্বুলেন্স দেখতে পাচ্ছিলেন।

ইস্তাম্বুল বিমানবন্দরটিকে অনেকদিন ধরেই ঝুঁকিপূর্ণ বলা হচ্ছিল।

কারণ যাত্রীদের প্রবেশ পথে লাগেজ স্ক্যান করা হলেও সেখানে টার্মিনালে আসা গাড়ির জন্য কোন স্ক্যানার নেই।

চিঠিপত্র: সম্পাদকের উত্তর