ঋন বিতরণে অনিয়ম: অগ্রণী ব্যাংকের এমডি অপসারিত

Image caption বাংলাদেশ ব্যাংক

বাংলাদেশের রাষ্ট্রায়ত্ত অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ আবদুল হামিদকে অপসারণ করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

ক্ষমতার অপব্যবহার করে প্রায় ৭৯০ কোটি টাকা ঋণ বিতরণের অভিযোগে এ পদক্ষেপ নিলো বাংলাদেশ ব্যাংক।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন মিস্টার হামিদকে অপসারণের সিদ্ধান্ত আজ থেকেই কার্যকর হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী মুখপাত্র এস এম মোকাম্মেল হক বিবিসিকে জানিয়েছেন কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সৈয়দ আবদুল হামিদ আগামী দু বছর ব্যাংকিং খাতে কোন ধরণের চাকুরী করতে পারবেননা।

তিনি বলেন, “সৈয়দ আবদুল হামিদের বিরুদ্ধে ঋণ সংক্রান্ত অনিয়মের যেসব অভিযোগ উঠেছে সেগুলো পর্যালোচনা করেই তাকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে”।

এ ক্ষেত্রে মিস্টার হামিদ সব ধরণের আইনি সহায়তা পেয়েছেন এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের স্থায়ী কমিটির সামনে ব্যক্তিগত শুনানিতেও তিনি বক্তব্য রেখেছেন।

পরে সবকিছু বিবেচনা করে বাংলাদেশ ব্যাংক তাকে ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পদ থেকে অপসারণ এবং পরবর্তী দু বছরের জন্য ব্যাংকিং খাতে তার চাকুরীর ওপর নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্ত নেয়।

এসব সিদ্ধান্ত বুধবারই তাকে জানিয়ে দেয়া হয়েছে বলে জানান এস এম মোকাম্মেল হক।

চিঠিপত্র: সম্পাদকের উত্তর