র‍্যাবের নিখোঁজ তালিকা: রিকশাচালক থেকে পাইলট

  • শায়লা রুখসানা
  • বিবিসি বাংলা, ঢাকা
ছবির ক্যাপশান,

র‍্যাবের নিখোঁজ তালিকায় রিকশাচালক, রাজমিস্ত্রী, গার্মেন্টস কর্মী যেমন আছেন, পাইলট, চিকিৎসক কিংবা প্রকৌশলীও আছেন।

বাংলাদেশে র‍্যাবের পক্ষ থেকে ২৬১ জন নিখোঁজ ব্যক্তির যে তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে তার মধ্যে, রিকশাচালক থেকে প্রশিক্ষিত পাইলট রয়েছেন। দোকানী, রাজমিস্ত্রি, গার্মেন্টস কর্মী যেমন আছেন তেমনি প্রকৌশলী কিংবা চিকিৎসকের নামও রয়েছে।

আইএসের ভিডিও চিত্রে যে তিনজন তরুণকে দেখা গিয়েছিল তাদের একজনের নাম ডাক্তার আরাফাত হোসেন তুষার/নাহিদ রেজা তুষার পরিচয়ে তালিকায় এসেছে। তিনি প্রয়াত একজন মেজরের ছেলে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

তালিকায় চিকিৎসক রয়েছেন আরও একজন। একজন আছেন মেরিন ইঞ্জিনিয়ার।

যদিও বেশিরভাগেরই শিক্ষাগত যোগ্যতা বা পেশা তালিকায় উঠে আসেনি। তবে কারও কারও শিক্ষাগত যোগ্যতা বিবিএতে অধ্যয়নরত, এমবিএ অধ্যয়নরত, অনার্স ২য় বর্ষে অধ্যয়নরত, কলেজ অধ্যয়নরত- এভাবে লেখা রয়েছে।

ছবির ক্যাপশান,

মঙ্গলবার মাঝরাতে র‍্যাব ২৬১ জন নিখোঁজ ব্যক্তির একটি তালিকা প্রকাশ করে।

কেউ কেউ অষ্টম, নবম কিংবা দশম শ্রেণী পর্যন্ত পড়ালেখার করেছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এসএসসি পাশ আছে কেউ। কেউ এসএসসি ফেল কিংবা কেউ পরীক্ষার্থী ছিল। একেবারেই সাক্ষরজ্ঞান নেই কিংবা পঞ্চম শ্রেণীর পর লেখাপড়া করেনি এমনও আছে।

এছাড়া মাদ্রাসা থেকে লেখাপড়া করেছে এমন ক’জনের নাম রয়েছে।

নিখোঁজ ব্যক্তিদের এই তালিকায় যারা রয়েছেন তাদের প্রায় সবাই ১৮ থেকে ৩৫ বছর বয়সী।

তালিকায় বিভিন্ন জেলার ব্যক্তিদের নাম তাকলেও একটি বড় অংশ ঢাকার বাসিন্দা।

এ তালিকায় আইএস এর ভিডিওতে থাকা সাবেক একজন নির্বাচন কমিশনারের ছেলে তাহমিদ রহমান সাফির নাম রয়েছে।

ছবির ক্যাপশান,

এর আগে গুলশান হামলায় সন্দেহভাজন কয়েকজনের ছবি সম্বলিত একটি ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করে র‍্যাব।

দেশব্যাপী অনুসন্ধান চালিয়ে সাম্প্রতিক কালের নিখোঁজ ব্যক্তিদের এই তালিকা মঙ্গলবার মধ্যরাতের পর র‍্যাবের মিডিয়া বিভাগের ফেসবুক পাতায় প্রকাশ করা হয়।

এসব ব্যক্তির খোঁজ পাওয়া গেলে কাছাকাছি র‍্যাব ক্যাম্পে জানানোর অনুরোধ করা হয়।

তবে তালিকায় থাকা সবাই জঙ্গি সংশ্লিষ্টতায় সন্দেহভাজন কিনা এবিষয়ে কিছু বলা হয়নি।

বাংলাদেশে সম্প্রতি গুলশান এবং শোলাকিয়ায় দুটি সন্ত্রাসী হামলার পর দেখা যায় হামলাকারীরা দীর্ঘদিন ধরে নিখোঁজ ছিল।

এরপরই নিখোঁজ ব্যক্তিদের বিষয়ে তৎপর হয় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।